ঘরে ঢুকে তরুণীকে গুলি ও কুপিয়ে খুন করল প্রেমিক

503

নিজস্ব প্রতিবেদক->>>

শনিবার (২০ জুন) কলকাতার রিজেন্ট পার্ক থানা এলাকার পশ্চিম আনন্দপল্লিতে এ ঘটনা ঘটে। ইতিমধ্যে ওই এলাকার চণ্ডী ঘোষ রোড থেকে অভিযুক্ত যুববকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাস্থলেই মারা যায় প্রিয়াঙ্কা পুরকাইত (২০) নামে ওই তরুণী। তিনি কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, খুনের এই ঘটনায় অভিযুক্তের নাম রাকেশ হালদার ওরফে জয়ন্ত। ২৬ বছরের ওই বিবাহিত যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু প্রেমিকের স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা জানতে পেরে সম্প্রতি ওই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চেয়েছিলেন তিনি। সেই রাগেই এ দিন রাকেশ তাকে খুন করেছে বলে ধারণা পুলিশের।

শিখা ধর নামে প্রিয়াঙ্কাদের এক প্রতিবেশী জানান, অভাবের সংসার হলেও প্রিয়াঙ্কা পড়াশোনায় ভাল ছিলেন। মা পরিচারিকার কাজ করে ছেলে-মেয়েকে পড়াশোনা করাচ্ছিলেন। পাশের পাড়ার বাসিন্দা রাকেশ প্রিয়াঙ্কার এক জামাইবাবুর বন্ধু। সেই সূত্রেই দু’জনের পরিচয় হয়েছিল। বছর কয়েক আগে দু’জনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তখন থেকেই রাকেশ বিয়ে করার জন্য প্রিয়াঙ্কাকে চাপ দিচ্ছিল বলে অভিযোগ। কিন্তু প্রিয়াঙ্কা পড়াশোনা শেষ না করে বিয়ে করতে রাজি হননি। অপেক্ষা না-করে রাকেশ অন্য এক জনকে বিয়ে করে নেয়। কিন্তু তা-ও প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে যোগাযোগ ছিল তার। এমনকি, প্রিয়াঙ্কার জন্য স্ত্রীকে ছেড়ে দিতেও রাজি ছিল সে। সম্প্রতি রাকেশের স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন জেনে প্রিয়াঙ্কা সম্পর্ক থেকে সরে আসতে চান। সে কথা শোনার পরেই রাকেশ বাড়িতে এসে প্রিয়াঙ্কাকে খুন করে বলেও জানান তিনি।

সূত্র, সময় টিভি