দাগনভূইয়া বাসীকে ১০টি হাই ফ্লো সেন্ট্রাল অক্সিজেন বেড উপহার দেন দিদারুল কবির রতন

204

মাসুদ রানা: কোভিড-১৯ সংক্রমণ দিনের পর দিন বেডে যাওয়া দেশের চলমান পরিস্থিতির চরম অবনতি হওয়ায় যখন জরুরী অক্সিজেনের অভাবে মারা যাচ্ছে অনেক করোনা রোগি তাই দাগনভূইয়া বাসীর কথা চিন্তা করে নিজের ব্যক্তিগত উদ্যাগে দাগনভূইয়াবাসীকে ১০ শয্যার হাই ফ্লো অক্সিজেন উপহার দেন দাগনভূইয়া উপজেলার চেয়ারম্যান জনাব,দিদারুল কবির রতন।দেশের এই দুরসময়ে ফেনীর দাগনভূঞার স্বাস্থ্যসেবায় যোগ হলো নতুন মাত্রা।করোনা রোগীর চিকিৎসায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চালু হলো সেন্ট্রাল অক্সিজেন সিস্টেম।  রোববার বিকেলে ১০ শয্যার হাই ফ্লো অক্সিজেন সুবিধা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান। যা উপজেলা পর্যায়ে দেশে এটি প্রথম। স্থানীয় উপজেলা চেয়ারম্যান দিদারুল কবির রতনের ব্যক্তিগত অর্থায়নে স্থাপিত হয়েছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সিস্টেম। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রুবাইয়াত বিন করিম জানান, এটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পর্যায়ে দেশের প্রথম সেন্ট্রাল অক্সিজেন সিস্টেম। এখন থেকে প্রয়োজন বুঝে রোগীকে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সিস্টেম সেবা দেয়া যাবে।সাধারণত আমরা করোনা রোগীদের বাসায় চিকিৎসা দিয়ে থাকি।এখন থেকে আক্রান্ত রোগী ভর্তি শুরু করতে আর কোন সমস্যা নেই। বিএমএ সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ সাহেদুল ইসলাম কাওসার স্যার এই ধারনাটা দিয়েছেন।এই জন্য উনাকে ও আমাদের উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয়কে ধন্যবাদ জানাই। সাংবাদিক দের এক প্রশ্নের জবাবে,উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব দিদারুল কবির রতন জানান, করোনা  রোগীদের জীবন বাঁচাতে অক্সিজেনের বিকল্প নেই। নিশ্চিতে সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে এগিয়ে এসেছি। ভবিষ্যতে সব ধরনের সেবায় সর্বাত্ন সহযোগীতা থাকবে।এতে করে আমাদের উপজেলা স্বাস্থ্য সেবাই যোগ হলো নতুন মাত্রা। উক্ত জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান বলেন, দাগনভূইয়া বাসীর এই দুর সময়ে দিদারুল কবির রতন এই মহতি উদ্দ্যােগ টি সত্যি প্রশংসনীয় কেননা ফেনীতে করোনা রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। অনেকে শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। মুমূর্ষ করোনা রোগীর সেবায় অক্সিজেনের বিকল্প নেই। এমন রোগীকে তাৎক্ষণিকভাবে অক্সিজেন দেয়াসহ অন্যান্য সুবিধায় ফেনী অনেক এগিয়ে গেছে। এ সুবিধা চালু হওয়ায় এলাকার মানুষ অনেক বেশি উপকৃত হবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন,ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ও ফেনী সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এস এস আর মাসুদ রানা, এসিল্যান্ড মাসুমা জান্নাত, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রুবাইয়াত বিন করিম, পৌর মেয়র ওমর ফারুক খান,থানার পরিদর্শক (তদন্ত) পার্থ প্রতিম দেব, প্যানেল মেয়র সাইফুল ইসলাম,সরকারী ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজের ভিপি,রাসেদ ভূইয়া প্রমুখ।