সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচারের প্রতিবাদ জানিয়েছে দাগনভূঞা প্রবাসী ফোরাম

38

নিজস্ব প্রতিবেক :

বিশ্বজুড়ে ভ্রাতৃত্বের সেতুবন্ধন, এই স্লোগানকে সামনে রেখে মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন “দাগনভূঞা প্রবাসী ফোরাম। এটি সম্পূর্ণ একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। যার মূল লক্ষ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা দাগনভূঞার মানুষদেরকে একাত্রিত করে একটি ভ্রাতৃত্বের বন্ধন সৃষ্টি করা ও দাগনভূঞায় বসবাসরত দরিদ্র, অবহেলীত ও অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করা। সারা বিশ্বের প্রায় ২০ টিরও বেশি দেশে সংগঠনটির কমিটি রয়েছে। সংগঠনের মাধ্যমে মানুষের কল্যাণে কাজ ধারাবাহীকভাবে চলছে। কিন্তু গত কিছুদিনযাবত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দাগনভূঞার কিছু লোক ফেক আইডির মাধ্যমে বিভিনন্নভাবে অপপ্রচার করে যাচ্ছে সংগঠন ও সংগঠনের লোকদের বিরুদ্ধে।

সংগঠনের আহবায়ক ও প্রতিষ্ঠাতা আবুল কাশেম জানান, প্রবাসে থাকা সবাইকে একাত্রিত করে দেশের মানুষের কল্যানের লক্ষে আমারা দাগনভূঞা প্রবাসী ফোরাম নামে এই সংগঠনটি তৈরি করেছি। ধারাবাহীকভাবে আমরা  সমাজ ও দেশের কল্যানে সংগঠনের মাধ্যমে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। কিন্তু ইদানিং আমাদের বিরুদ্ধে যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছে আমি উক্ত ঘটনার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

অন্যদিকে প্রবাসী ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক নিজাম উদ্দিন জানান, আমরা দাগনভূঞার উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা। দীর্ঘ ২৩ বছর প্রবাসে থেকে ব্যবসা বানিজ্য নিয়ে রয়েছি।  কিন্তু প্রবাসে থাকা দাগনভূঞা কোন ব্যক্তির সাথে কোনরকম যোগাযোগ ছিলোনা কোনদিন। যে যার মত করে প্রবাস জীবন কাটাচ্ছে। কিন্তু গত ৮ মাস আমাদের প্রবাসী ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আবুল কাসেম ভাই আমাকে সামাজিক কর্মকার্ড নিয়ে সংগঠনটির জন্য প্রস্তাব জানালে আমি স্বাগতম জানাই উক্ত কমিটিতে। সেই থেকে অদ্যাবধি সংগঠনটির সাথে মানুষের কল্যণে কাজ করে যাচ্ছি। সবসময় চেষ্টা করেছি দাগনভূঞার অসহায় মানুষের পাশে থাকার থাকার জন্য। কিন্তু কিছু লোক ফোরাম থেকে পদ পদবী না পেয়ে আমাদের আহ্বায়ক কমিটির সবাই কে নিয়ে বিভিন্ন ধরনের ভ্যাংগ চিত্র ফেজবুকে আমাদের নিয়ে ছবি ব্যাবহার করে আসছেন। আমি তাদের উদ্দেশ্য করে বলব এসব অসামাজিক কাজ থেকে সবাইকে বিরত থাকার অনুরোধ করছি, অনথ্যায় আমরা দাগনভূঞা প্রবাসী ফোরামের পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিব। আপনারা ঘুঁটি ৮/১০ জন লোক আমাদের বিরুদ্ধে অপ্রপচার চালাচ্ছেন আমরা আপনাদের সবাই চিনি এখন নাম নিলাম না সতর্ক করার জন্য।